Download Free FREE High-quality Joomla! Designs • Premium Joomla 3 Templates BIGtheme.net
Home » খেলাধুলা » কন্ঠশিল্পী আসিফকে ‘পাগল’ বললেন মুশফিক! বিস্তারিত পড়ুন-

কন্ঠশিল্পী আসিফকে ‘পাগল’ বললেন মুশফিক! বিস্তারিত পড়ুন-

Loading...

গতকালই নিজের ফেসবুকে বিপিএল নিয়ে সমালোচনা ভরা পোস্ট দিয়েছিলেন জনপ্রিয় গায়ক আসিফ আকবর। ফিক্সিংয়ের গন্ধ পাচ্ছেন উল্লেখ করে লিখেছিলেন জুয়ার অপর নাম টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। এমনকি সন্দেহের চোখ রেখেছিলেন নিজের সমর্থিত দল বরিশাল বুলসেও। ঘটনার একদিন পর আসিফকে একহাত নিলেন বরিশাল অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। মঙ্গলবার ক্ষুব্ধ এবং বিরক্তি প্রকাশ করে ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘কী আর বলব.. শোনার পর এবং নিজের চোখে দেখার পর বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। উনি একজন তারকা, তার মুখ থেকে এরকম কথা…এটা বিরক্তিকর ও লজ্জাজনক।’

মুশফিক যে বেজায় চটেছেন তা আরও স্পষ্ট হয়ে উঠে এ কথাগুলোতেই, ‘আমরা দেশি-বিদেশি সবাই এত কষ্ট করে খেলছি, এত পেশাদারিত্ব, এটাই আমাদের রুটি-রোজগার, এটার সঙ্গে যদি কেউ বেঈমানি করেন, এর চেয়ে বড় কিছু আর হতে পারে না। উনি যেটা লিখেছেন, খুব কষ্ট লাগছে। উনি এটা মাথা ঠিক অবস্থায় লিখেছেন নাকি নিজেও জানি না।’

আসিফ সুস্থ মস্তিষ্কের নন এমনটা দাবি করে মুশফিক বলেছেন, ‘আমার প্রশ্ন করতে ইচ্ছে করছে উনাকে, সামনে পেলে প্রশ্ন করব- কোন পরিস্থিতি দেখে আপনার মনে হয়েছে, বা কোন দেশি বা বিদেশি খেলোয়াড় এসবে জড়িত। উনি লিখেছেন যে উনি নিশ্চিত, কিন্তু প্রমাণ নেই। এটা কোন ধরনের ভাষা! এটাই বলে দেয় উনি কোনও অবস্থাতেই সুস্থ মস্তিষ্কে ছিলেন না।’

খেলার মধ্যে বাইরের লোক থাকলে এই ধরনের সমস্যা হয় কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেছেন, ‘তারও খেলার প্রতি টান আছে, অনেক ভাবে জড়িত ছিলেন। এরকম লোকের কাছ থেকে এরকম অভিযোগ আসাটা হতাশাজনক। উনি বলতে পারতেন যে আমাদের খেলায় উনি হতাশ। সেটা হতেই পারে। শুধু উনি কেনও, বরিশালবাসী সবাই হতাশ। ভালো করতে পারছি না, এটা অন্য কথা। কিন্তু উনি যেভাবে লিখেছেন, পাগল ছাড়া একজন মানুষের পক্ষে এটা লেখা সম্ভব না।’

ফেসবুকে এভাবেই লিখেছিলেন আসিফ

প্রসঙ্গত, সোমবার নিজের ফেসবুকে আসিফ আকবর লিখেন, ‘১৭, ১৮, ১৯ এবং ২০ নম্বর ওভার গুলোতে ব্যাটসম্যানরা হয়ে যায় প্রতিবন্ধী আর বোলাররা হয়ে যায় বাঘ। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট জুয়ার অপর নাম। দর্শক হিসেবে মাঠে যাই খেলা দেখতে আর আমাদের নিয়ে খেলা হয় টেবিলে। সন্দেহ ঢুকেছে প্রেসবক্সেও।

অন্য কোনও দলের কথা বলবো না । আমার দল বরিশাল বুলসের বিদেশি এবং দেশি খেলোয়াড়দের একটা অংশ ম্যাচ ফিক্সিংয়ে জড়িত আমি নিশ্চিত, প্রমাণ নেই। তবে বিসিবি এবং আকসু যদি তীক্ষ্ণ দৃষ্টি দেয় তাহলে অবশ্যই তারা প্রমাণ খুঁজে পাবেন আমার বিশ্বাস। গরীব দল বুলস, ফ্র্যাঞ্চাইজি মালিকদের জন্য খারাপ লাগছে। তবে আমি কৃতজ্ঞ তাদের প্রতি। আত্মঘাতী গোলে হেরে যাওয়ার জন্য বরিশাল বুলসের জন্য সমবেদনা। ছিলাম, আছি, থাকবো ক্রিকেটের সঙ্গে। জয় হোক বাংলাদেশ ক্রিকেটের। অনেক হয়েছে, এবার একটু রেকর্ডিং এ মনোযোগ দেই…।’

ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন
Loading...

screenshot